নিজস্ব প্রতিবেদক

ফরিদপুরের ভাঙ্গায় অটোচালককে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগে ভাঙ্গা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহাঙ্গীর আরিফের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল হয়েছে। এসময় মহাসড়ক অবরোধ করেন অটোচালকেরা।

পরে ভাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেলিম রেজা ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

রোববার দুপুর ১২টার দিকে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের ভাঙ্গা উপজেলার হাসপাতাল মোড় সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

কয়েকজন অটোচালক জানান, দুপুর ১২টার দিকে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের ভাঙ্গা উপজেলার হাসপাতাল মোড় সংলগ্ন এলাকায় মহাসড়কে অটোচালানোর অপরাধে ভাঙ্গা হাইওয়ে থানার ওসি অটোচালক হৃদয় মাতুব্বর (২১) কে পেটান। এক পর্যরায়ে ওসির হাতে থাকা ওয়ারলেস সেট দিয়ে অটোচালক হৃদয়ের মাথায় আঘাত করে।

আহত অটোচালক হৃদয় মাতুব্বর ভাঙ্গা পৌরসভার কাপুড়িয়া সদরদী মহল্লার পাঞ্জু মাতুব্বরের ছেলে।

এলাকাবাসী জানায়, হৃদয়কে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

ভাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা এম এম মাঈনুদ্দিন বলেন, হৃদয় মাথায় আঘাত নিয়ে এ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তার মাথার আঘাত কতটা গুরুতর তা নিরীক্ষার জন্য সিটি স্ক্যান করার প্রয়োজন। এজন্য তাকে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

এদিকে এ ঘটনার প্রতিবাদে শতাধিক অটোচালক মহাসড়কের ভাঙ্গা পৌরসভার হাসপাতাল মোড়ে হাইওয়ে থানার বিচার চেয়ে বিক্ষোভ মিছিল ও মহাসড়ক অবরোধ করে। এতে দুপুর আড়াইটা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ থাকে।

ভাঙ্গা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহাঙ্গীর আরিফ অভিযোগের বিষয়ে বলেন, হাইকোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী দুপুর ১২টার দিকে থ্রি হুইলারসহ অবৈধ যানবাহনের বিরুদ্ধে ভাঙ্গা হাসপাতাল মোড়ে আমাদের অভিযান চলছিল। এ সময় অনেক অটোচালক উপস্থিত ছিলেন। তারা পুলিশের নির্দেশ অমান্য করছিল। এ সময় পুলিশের সাথে অটোচালকদের ধস্তাধস্তি হয়। এক পর্যায়ে এক অটোচালক পড়ে গিয়ে সামান্য আহত হয়ে থাকতে পারেন। তিনি বলেন মহাসড়ক অবরোধের বিষয়ে তার কিছু জানা নেই।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ভাঙ্গা সার্কেল) ফাহিমা কাদের চৌধুরী বলেন, অবৈধ অটো ধরা নিয়ে পুলিশের সাথে অটোচালকদের সমস্যা হয়েছিল। অটোচালকরা মহাসড়ক অবরোধের চেষ্টা করেছিল। এ সময় পুলিশ গিয়ে আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণের আশ্বাস দিলে অটোচালকরা তাদের কর্মসূচি থেকে ফিরে আসেন।