মাসুম বিল্লাহ,বাগেরহাট প্রতিনিধিঃ

বাগেরহাট জেলা শাখার মোংলা পৌর শাখার আহবায়ক শাহ্ পরান তিনি দীর্ঘ এক বছর মোংলা পৌর শাখার সাবেক ভিপি নুরুল হক নুরের ছাত্র অধিকার পরিষদের আহবায়কের দায়িত্ব পালন করে আসছেন।তবে তিনি হটাৎ করে ফেসবুক স্ট্যাটাস দেন যে আমি পূর্বে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাথে জড়িতো ছিলাম কিন্তু মাঝখানে কিছু দুষ্কৃতী বড় ভাইদের সাথে চলাফেরা করার কারণে আমি পথ ভ্রষ্ট হই,

শাহ্ পরানের এমন ফেসবুক পোষ্ট দেখে বাগেরহাটে ভিপি নুরুল হক নুরের সংগঠনের আরিফ রাজ যুব অধিকার পরিষধের সহ সমন্বয়ক কমেন্টে দাবি করেন এই লেখার পিছনে গভীর ষড়যন্ত্র আছে এবং গুজব।

রামপাল উপজেলার ছাত্র অধিকার পরিষধের আহবায়ক তাজ রনি তিনি দাবি করেন তার আইড়ি হ্যাক হয়েছে।

ছাত্রী বিষয়ক জেলার সম্পাদক ফাতেমা তুজ যোহরা রেসা তিনি কমেন্টে করেন গুজবে কান দিলামনা।

পরবর্তিতে শাহ্ পরান লাইভে এসে তিনি নিশ্চিত করেন এবং এই আমার দেশ মিড়িয়াকে তিনি পদত্যাগের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন যে,আমি বাংলাদেশ ছাত্রলীগে পুনরায় যোগদান করেছি এবং,ভিপি নুরুল হক নুরের দল থেকে পদ্যত্যাগ করেছি।

আমি আমার সিদ্ধান্তে অটল রয়েছি,আমি বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাথে যোগদান করেছি জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু

তার ফেসবুক টাইমলাইন থেকে পোষ্টি তুলে ধরা হলো,
আমি মোহাম্মদ শাহপরান আমি দীর্ঘদিন যাবৎ বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাথে সংযুক্ত ছিলাম, কিন্তু মাঝখানে কিছু দুষ্কৃতী বড় ভাইদের সাথে চলাফেরা করার কারণে আমি পথ ভ্রষ্ট হই। তার কারণে আমি বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদ এর সাথে সংযুক্ত হয়েছিলাম। কিন্তু আমি জানতাম না এরা দেশের শত্রু মানুষের শত্রু সারা বাংলাদেশের ষড়যন্ত্রকারীদের সাথে সংযুক্ত রয়েছে এরা পাকিস্তানের এজেন্ডা হিসেবে কাজ করে। তাই আমি আমার নিজ বিবেচনায় ভুল বুঝতে পেরে আমি বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদ থেকে পদত্যাক করিলাম।

আমি মংলা বাসীর কাছে ও বাংলাদেশের সকল মানুষের কাছে এবং বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কাছে ক্ষমাপ্রার্থী। আমি আবার আমার প্রাণ প্রিয় সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ করতে চাই। আমাকে সবাই আপনাদের ছোট ভাই এবং ছেলের মত দেখে ক্ষমা করে দিবেন। জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু।