মাসুম বিল্লাহ,বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ

বাগেরহাটের মোল্লাহাটে নাইম খান (২৮) নামের এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। বৃহস্পতিবার (২৪ মার্চ) রাত ৯টার দিকে উপজেলার গাংনী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
নিহত নাইম উপজেলার গাংনী গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্য আবুল খানের ছেলে। তিনি মোল্লাহাট উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয়ে অফিস সহকারী পদে কর্মরত ছিলেন।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নাইম তার বাড়ির পাশের একটি দোকানে লুডু খেলছিলেন। রাত সাড়ে ৮টার দিকে তার মোবাইলে একটি ফোন আসে। এর পরে তিনি লুডু খেলা ছেড়ে চলে যান। কিছুক্ষণ পর এক নারী পরিত্যক্ত একটি বাড়ির উঠানে তাকে গলা ও হাত কাটা অবস্থায় দেখতে পান। এসময় ওই নারীর চিৎকারে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে একটি ক্লিনিকে ভর্তি করে। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে নাইমকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
মোল্লাহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৌমেন দাস এঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, গুরুতর আহত অবস্থায় নাইম খানকে উদ্ধার করে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয় তার স্বজন ও স্থানীয়রা। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক নাইমকে মৃত ঘোষণা করেন। নাইমের লাশ খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রয়েছে। এছাড়া হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িতদের শনাক্তে পুলিশ কাজ করছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।